রাজ্য সরকারি প্রকল্প ব্যবসা প্রযুক্তি টেলিকম চাকরির খবর অর্থনীতি স্কলারশিপ
Advertisements

Kar Kache Koi Moner Katha: বউয়ের সামনে ‘ফুলশয্যার খাটে মা-ছেলে’, মানালি অভিনীত নতুন ধারাবাহিক ঘিরে নিন্দার ঝড়

Kar Kache Koi Moner Katha: শুরু হয়ে গেছে অভিনেত্রী মানালি দের (Manali Dey) নতুন ধারাবাহিক 'কার কাছে কই মনের কথা' (Kar Kache Koi Moner Katha)। 'বউ কথা কও' (Bou Kotha…

Kar Kache Koi Moner Katha: শুরু হয়ে গেছে অভিনেত্রী মানালি দের (Manali Dey) নতুন ধারাবাহিক ‘কার কাছে কই মনের কথা’ (Kar Kache Koi Moner Katha)। ‘বউ কথা কও’ (Bou Kotha Kou), ‘নকশী কাঁথা’ (Nokshi Kantha), ‘ধুলোকণা’র (Dhulokona) মতো জনপ্রিয় ধারাবাহিক ও ‘গোত্র’র (Gotro) মতো কমার্সিয়ালি সাকসেসফুল সিনেমায় মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করার পরে ‘কার কাছে কই মনের কথা’ ধারাবাহিকে দেখা গেছে অভিনেত্রীকে।

Kar Kache Koi Moner Katha

এই ধারাবাহিকে মূলত এক নববধূর বিবাহ পরবর্তী জীবনে আগত সমস্যা ও পাড়ার ৫ অন্যান্য বধূর সঙ্গে হওয়া বন্ধুত্বকে কেন্দ্র করে আবর্তিত। প্রথম প্রোমো প্রকাশ্যে এলে অনেকেই ভাবতে শুরু করেন কাহিনীটি নানান ঘটনাবলীর মাধ্যমে পাড়ার ৫ বধূর বন্ধুত্ব তৈরি হওয়া ও মজবুত হওয়ার গল্পকে নিয়ে এগোবে। গল্পের এই ধাঁচকে কেন্দ্র করে অনেকে প্রোমোটির প্রশংসাও করেন। কিন্তু ধারাবাহিকটি শুরু হতেই আশাহত হলেন বহু দর্শক। জুলাই মাসে শুরু হওয়া ধারাবাহিকটি শাশুড়ি-বৌমার লড়াইয়ে পরিণত হতে দেখে অনেকজনেই বিরক্তি প্রকাশ করলেন।

Kar Kache Koi Moner Katha

কাহিনীতে কী চলছে?

এই ধারাবাহিকে মানালির চরিত্রের নাম ‘শিমূল’। ধারাবাহিকটিতে তাঁর বিপরীতে থাকা চরিত্রের নাম ‘পরাগ’। মানালির বাপের বাড়িকে অপমান করা, তাঁর গাত্রবর্ণকে কেন্দ্র করা কটাক্ষ করা এইসব ইতিমধ্যে এই ধারাবাহিকে দেখানো হয়ে গেছে। তবে এবার যা দেখানো হল তা নিয়ে চরম আপত্তি জানালেন দর্শকরা। এই ধারাবাহিকে সম্প্রতি ফুলশয্যার খাটে পরাগ ও তাঁর মা’কে দেখানো হয়েছে। বিয়ের প্রথম রাতে পরাগ যেখানে তাঁর স্ত্রীর জন্য কোনো উপহার আনেনি, সেখানে শিমূলকে তাঁর স্বামীর জন্য আংটি আনতে দেখা যায়। ঠিক উপহার বদল করার মুহূর্তেই এন্ট্রি হয় পরাগের মায়ের। অসুস্থতার নাম করে ছেলের ফুলশয্যার খাটে শুয়ে পড়েন পরাগের মা। এই দৃশ্যই সম্প্রতি বিতর্কের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

নয়া প্লটকে কেন্দ্র করে নেটিজেনদের প্রতিক্রিয়া: আর এই নিয়েই ধারাবাহিককে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন নেটিজেনরা। অনেকের প্রশ্ন, “টিআরপি বাড়ানোর উদ্দেশ্যে এমনটা কি না দেখালেই হতো না?” একজন আবার দাবি করেছেন, “ধারাবাহিকের জন্য এই প্লট যদি খুবই দরকার ছিল, তাহলে অন্তত খাটে শিমূল ও পরাগের মাকে রেখে পরাগকে চেয়ারে দেখানো হলে কিংবা পরাগের মা তাঁর ছেলেকে নিজের রুমে ডেকে নিলে এমন অরুচিকর দৃশ্য দেখতে হতো না”।