রাজ্য সরকারি প্রকল্প ব্যবসা প্রযুক্তি টেলিকম চাকরির খবর অর্থনীতি স্কলারশিপ
Advertisements

৭৫ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুত বিল দিতে হবে না! এমনই প্রকল্প চালু রাজ্যের

Hasir Alo Scheme: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে বিদ্যুতের প্রয়োজনীয়তার কথা আশাকরি কাউকে বলে বোঝানোর নেই। বাড়িতে থাকতে হলে বলুন বা বাড়ির আসবাবপত্র এই যেমন ধরুন টিভি, ফ্রিজ, ওয়াসিং মেশিন সবকিছু চালাতেই…

Hasir Alo Scheme: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে বিদ্যুতের প্রয়োজনীয়তার কথা আশাকরি কাউকে বলে বোঝানোর নেই। বাড়িতে থাকতে হলে বলুন বা বাড়ির আসবাবপত্র এই যেমন ধরুন টিভি, ফ্রিজ, ওয়াসিং মেশিন সবকিছু চালাতেই ইলেকট্রিকের প্রয়োজন হয়। দিনে দিনে এই বিল দিতে গিয়ে হাঁপিয়ে উঠছে মানুষ। কিন্তু আপনি জানেন কি আপনার ৭৫ ইউনিট বিলের খরচ মেটাবে সরকার।

অনেকেই আছেন এই প্রকল্পের কথা জানেন না। কিন্তু তারপরেও বহু মানুষ আছেন যারা এই প্রকল্পের সুবিধা ভোগ করছেন। চলুন এই প্রকল্প কি? কারা, কিভাবে এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন চলুন সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক।

এই প্রকল্পের নাম কি? (What is the name of this project?)

এই প্রকল্পের নাম হাসির আলো প্রকল্প (Hasir Alo Scheme)।

কত সালে কার হাত ধরে এই প্রকল্প চালু হয়েছিল? (In which year this project was launched by whom?)

২০২০ সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) হাত ধরে এই প্রকল্পের শুভ সূচনা হয়েছিল।

হাসির আলো প্রকল্প আসলে কি? (Hasir Alo Scheme)

এই প্রকল্পের মাধ্যমে ০.৩ কিলোওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন কোনো বাড়ির বিদ্যুৎ পরিষেবার ৭৫ ইউনিট বিল সম্পূর্ণ বিনামূল্যে মিলবে। মূলত তিন মাসের জন্য এই বিল দেওয়া হবে। সেক্ষেত্রে কোনো পরিবারের যদি ৭৫ ইউনিট বিল আসে তাহলে সেই পরিবারের বিল সম্পূর্ণ বিনামূল্যে হয়ে যাবে। ৭৫ ইউনিট বাদে যে বিল আসবে সেটা ওই পরিবারকেই দিতে হবে।

কারা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন? (Who will benefit from this project?)

রাজ্য সরকারের এই হাসির আলো প্রকল্পের (Hasir Alo Scheme) সুবিধা কিন্তু সকলে পাবেন না। যারা BPL তালিকাভূক্ত তারাই একমাত্র এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। মূলত রাজ্যের আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের মুখে হাসি ফোটাতেই এই প্রকল্প আনা হয়েছে।

আরও পড়ুন: রেশনে চাল, গম নেওয়ার নিয়মে বড়সড় বদল! না মানলে আর পাবেন না খাদ্য সামগ্রী

কিভাবে আপনি এই প্রকল্পের তালিকায় আসবেন? (How did you come to list this project?)

এই প্রকল্পের (Hasir Alo Scheme) তালিকায় নাম নথিভুক্তের অন্যতম সুযোগ হল দুয়ারে সরকার ক্যাম্প। এছাড়াও আপনি যদি BPL তালিকাভূক্ত হন তাহলে কাছের কোনো বিদ্যুৎ দফতরের অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করতে পারেন।