রাজ্য সরকারি প্রকল্প ব্যবসা প্রযুক্তি টেলিকম চাকরির খবর অর্থনীতি স্কলারশিপ
Advertisements

সরকারের এই স্কিমে টাকা রাখলে হয়ে যাচ্ছে ডবল! জেনে নিন স্কিম সম্পর্কে

Mahila Samman Savings Scheme: একটি জনপ্রিয় ক্ষুদ্র সঞ্চয়ী প্রকল্প হল মহিলা সম্মান সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিম (Mahila Samman Saving Scheme)। এই স্কিমে খুবই কম সময়ে লাখ টাকা আয় করার সুযোগ পান…

Mahila Samman Savings Scheme: একটি জনপ্রিয় ক্ষুদ্র সঞ্চয়ী প্রকল্প হল মহিলা সম্মান সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিম (Mahila Samman Saving Scheme)। এই স্কিমে খুবই কম সময়ে লাখ টাকা আয় করার সুযোগ পান মহিলারা। মাত্র ২ বছরের বিনিয়োগের বিনিময়ে ৫০ হাজার টাকা থেকে ১ লক্ষ টাকা আয় করার সম্ভব। অকাল প্রত্যাহারের সুবিধাও দেওয়া হয়েছে। চলুন দেখে নেওয়া যাক, এই প্রকল্পে কত টাকা বিনিয়োগ করার পরিবর্তে কত টাকা পাওয়া যাবে।

টাকার হিসাব (Money amount calculation)

মহিলা সম্মান সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিম (Mahila Samman Savings Scheme) ক্যালকুলেটর থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, এই প্রকল্পে কোনো মহিলা যদি ৫০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করেন তাহলে ৭.৫% সুদের হারে ৮০১১ টাকা সুদ হিসাবে পাবেন। ২ বছরের মেয়াদ শেষ হলে মোট ৫৮ হাজার ১১ টাকা পাওয়া যাবে।

১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করলে রিটার্নের পরিমাণ (Return amount of 1 lakh investment)

২ বছরের জন্য ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করলে ১ লক্ষ ১৬ হাজার ২২ টাকা পাওয়া যাবে। বিনিয়োগের পরিমাণ ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা হলে রিটার্নে পাওয়া যাবে ১ লক্ষ ৭৪ হাজার ৩৩ টাকা। কেউ ২ লক্ষ টাকা ইনভেস্ট করলে বিনিময়ে পাবে ২ লক্ষ ৩২ হাজার ৪৪ টাকা।

আরও পড়ুন, এবার আধার ভেরিফিকেশন হবে পাসপোর্টের মতন, সময় লাগবে ১৮০ দিন

মহিলা সম্মান সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিমে আবেদনের প্রক্রিয়া (Application process of Mahila Samman Savings Scheme)

ব্যাঙ্কে বা পোস্ট অফিসে গিয়ে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন জানানো যায়। এক্ষেত্রে আবেদনপত্র পূরণ করে প্যান কার্ড, আধার কার্ড ও পাসপোর্ট সাইজ ফটো জমা করলেই কাজ হয়ে যাবে।

মহিলা সম্মান সেভিংস সার্টিফিকেট স্কিমের বিশেষ সুবিধা (Special advantage of Mahila Samman Saving Certificate)

১. বিনিয়োগ করার মাত্র ১ বছর পর থেকেই টাকা তোলা যায়। এক্ষেত্রে ৪০% টাকা তোলার অনুমতি দেওয়া হয়।
২. বিনিয়োগকারী ব্যক্তি মারা গেলেও তাঁর অ্যাকাউন্ট ৬ মাস পর্যন্ত চলবে। তবে, সুদের হার ২% কমিয়ে ৫.৫% হারে সুদ দেওয়া হবে।