রাজ্য সরকারি প্রকল্প ব্যবসা প্রযুক্তি টেলিকম চাকরির খবর অর্থনীতি স্কলারশিপ
Advertisements

রাজ্যে বিনামূল্যে মোবাইল দেওয়া শুরু হবে, কিভাবে নাম লেখালে পাবেন? জানুন

Digishakti Free Mobile: এবার বিনামূল্যে পাবেন ট্যাবলেট-স্মার্টফোন! সম্প্রতি ইউপিতে চালু হয়েছে এটি। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ শনিবার বিনামূল্যে ট্যাবলেট এবং স্মার্টফোন বিতরণ প্রকল্প চালু করেছেন (Free Smartphones For Students)। যারফলে…

Digishakti Free Mobile: এবার বিনামূল্যে পাবেন ট্যাবলেট-স্মার্টফোন! সম্প্রতি ইউপিতে চালু হয়েছে এটি। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ শনিবার বিনামূল্যে ট্যাবলেট এবং স্মার্টফোন বিতরণ প্রকল্প চালু করেছেন (Free Smartphones For Students)। যারফলে উত্তরপ্রদেশের ১ কোটি যুবক এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। চলুন সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক।

কবে থেকে এই স্কিম চালু হয়েছে? (Since when this scheme has been launched?)

ভারতরত্ন প্রাপ্ৰক প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী এবং পণ্ডিত মদন মোহন মালব্যের জন্মবার্ষিকীতে এই স্কিমটি চালু করা হয়েছে।

এই স্কিমটি আসলে কি? (What exactly is this scheme?)

মূলত এই প্রকল্পের মাধ্যমে সরকার প্রতিটি জেলার যুবকদের বিনামূল্যে ল্যাপটপ ও স্মার্টফোন দেবেন।

কত লক্ষ যুবক এই প্রকল্পের আবেদন করেছেন? (Digishakti Free Mobile)

এই প্রকল্পের সুবিধা পেতে ইতিমধ্যেই রাজ্যের ৩৮ লক্ষেরও বেশি যুবক আবেদন করেছেন।

কারা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন? (Who will benefit from this project?)

  1. যারা উত্তরপ্রদেশের নাগরিক একমাত্র তারাই এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন।
  2. এই স্কিমের সুবিধা পেতে হলে আবেদনকারীকে স্নাতক বা স্নাতকোত্তর কোর্সের শেষ বর্ষের ছাত্র হতে হবে।
  3. সেই শিক্ষার্থীকে ৬০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে।
  4. শিক্ষার্থীর পরিবারের মোট আয় ২ লাখ টাকার বেশি হলে চলবে না।

আরও পড়ুন: জলের সমস্যা মেটাতে ৭০০ কোটি বরাদ্দ প্রশাসনের! কি কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে? জেনে নিন

কোন পোর্টালে আবেদন করতে পারবেন? (Which portal can apply?)

এই প্রকল্পের সুবিধা পেতে হলে আপনাকে ডিজি শক্তি (Digishakti) পোর্টালে আবেদন করতে হবে।

কিভাবে আবেদন করবেন? (How to apply Digishakti Free Mobile?)

  1. আবেদন করার জন্য প্রথমেই আপনাকে ডিজি শক্তির ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. এরপর ডিজি সার্ভারে লগইন করুন। তারপর ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিন এবং সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন। তাহলেই আপনার কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য যথাযথ জায়গায় পৌঁছে যাবে।
  3. তারপরেই লগ ইন করুন। এভাবে আপনার তথ্য নিমেষেই সরকারের কাছে চলে যাবে। বিনামূল্যে স্মার্টফোন, ট্যাবলেট পেতে শিক্ষার্থীদের কিছু করতে হবেনা। এটি একটি অটোমেশন পদ্ধতি। কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যের ভিত্তিতেই যুবকরা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন।