রাজ্য সরকারি প্রকল্প ব্যবসা প্রযুক্তি টেলিকম চাকরির খবর অর্থনীতি স্কলারশিপ
Advertisements

সবুজে ঘেরা পরিবেশ, দু’দিনের ছুটিতে ঘুরে আসুন কলকাতার কাছের এই গ্রাম থেকে, মন হয়ে যাবে কুল

Hills: বেড়াতে যেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ প্রায় দেখাই যায় না। একঘেয়ে জীবন থেকে কিছুটা মুক্তি পেতে নতুনত্ব কোনো একটি জায়গার সন্ধান করতে চান ভ্রমণপ্রিয় মানুষরা। আর যারা পাহাড়ের…

Hills: বেড়াতে যেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ প্রায় দেখাই যায় না। একঘেয়ে জীবন থেকে কিছুটা মুক্তি পেতে নতুনত্ব কোনো একটি জায়গার সন্ধান করতে চান ভ্রমণপ্রিয় মানুষরা। আর যারা পাহাড়ের কোলে একটু শান্তির নিশ্বাস নিতে চান, তাদের জন্য স্বল্প ছুটিতে, স্বল্প খরচে ঘুরে আসার জন্য অতি পরিচিত জায়গা দার্জিলিং (Darjeeling) তো আছেই। আপনিও যদি এরকম একজন পাহাড়প্রেমী মানুষ হন, আর যদি নতুনত্ব কোনো পাহাড়ি অঞ্চলের খোঁজ করে থাকেন, তবে আজ এই প্রতিবেদন আপনাকে উপকৃত করবেই। কারণ এই প্রতিবেদনে আজ এমন একটি পাহাড়ি স্থানের সন্ধান আপনাদের দেবো যা দার্জিলিং এর কাছে অবস্থিত হলেও নিজের অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে এই স্থান দার্জিলিংকেও টেক্কা দিতে পারে।

Hills

গন্তব্যস্থলের নাম ও পরিচয় (Chatakpur Hills destinations)

জায়গাটির নাম চটকপুর (Chatakpur)। পাইন গাছে ঘেরা জঙ্গল, পাহাড় আর পাখির কলতানে পরিপূর্ন এই জায়গা আপনার একঘেয়ে জীবনে যে একরাশ শান্তি এনে দেবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। মাত্র চার-পাঁচ দিনের ছুটিতেই অনায়াসে ঘুরে আসতে পারেন এই চটকপুর স্থানটি থেকে। দার্জিলিংয়ের খুব কাছের একটি ছোট্ট গ্রাম হলো এই চটকপুর (Chatakpur)৷ পাইন গাছের সারি দিয়ে ঘেরা এই গ্রামে শহুরে কোলাহল মুক্ত পরিবেশে স্নিগ্ধ বাতাস আর পাখির কলরবে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যকে মন ভরে উপভোগ করতে পারবেন আপনি। প্রকৃতি এখানে তার অপরূপ রূপের ডালি সাজিয়ে সারা বছর অপেক্ষা করে পর্যটকদের জন্য। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন এই গ্রামে প্রকৃতির মাঝে শান্তির নিশ্বাস নিতে পারবেন আপনি।

গন্তব্যস্থলের দূরত্ব ও রাস্তাঘাট (Chatakpur Hills distance & roads)

এই চটকপুর গ্রামটি দার্জিলিং (Darjeeling) থেকে মাত্র ২৫ কিলোমিটার এবং সোনাদা (Sonada) থেকে মাত্র ১০ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত৷ ঘুম (Ghum) ও সোনাদা (Sonada) হয়ে যাওয়ার সড়কপথটির অবস্থা বর্তমানে বেহাল হলেও তা পেরিয়ে যখন আপনি পাহাড়ের কোলের এই ছোট্ট গ্রামটিতে পৌঁছাবেন, তখন এই গ্রাম আপনাকে যাত্রাপথের সমস্ত ক্লান্তি এক নিমেষে নিজের সৌন্দর্য দিয়ে ভুলিয়ে দেবে। গ্রামে পৌঁছে গ্রামের সতেজ সবুজ পরিবেশে আপনার মন প্রাণ জুড়িয়ে যেতে বাধ্য।

Chatakpur Hills

চটকপুরের দর্শনীয় স্থান (Chatakpur Hills Places to visit)

অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর এই চটকপুর গ্রামটি।পাহাড় ও জঙ্গলকে একসাথে উপভোগ করতে পারবেন এই স্থানে এসে। এটি আসলে একটি পাহাড়ি গ্রাম, কোনো সাজানো গোছানো পর্যটন কেন্দ্র এটি নয়। তাই অন্য পর্যটন কেন্দ্রের স্বাদ এখানে অনুভব করতে পারবেন না ঠিকই, তবে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন এই গ্রামের কয়েকটি বিশেষ জায়গা যেমন কালাপোখড়ি, লাভার্স পয়েন্ট (Lovers Point) এবং সানরাইজ পয়েন্ট (Sunrise Point) ইত্যাদি জায়গাগুলি আপনার মন জিতে নেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

Short Film
বন্ধ ঘরে দুধওয়ালার সাথে কুকর্মে সামিল হলেন বৌদি, ছোটদের সামনে দেখবেন না এই শর্ট ফিল্ম

একেবারে গ্রামীণ পরিবেশের মধ্য দিয়ে পায়ে হেঁটে গ্রামের আশেপাশের জায়গাগুলি থেকে ঘুরে আসতে পারেন আপনি। সেখানে দেখতে পাবেন কালাপোখড়ি নামক স্থানটিতে একটি ছোটো জলাশয়ের মধ্যে বড় একটা পাথর আছে, যা ওই গ্রামের স্থানীয় মানুষরা পুজো করেন। এই জলাশয়ে আবার জঙ্গলের প্রাণীরা জল খেতে আসে। তাই বন্য পশু দেখার জন্য কালাপোখড়ি অঞ্চলটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। জঙ্গলের ভিতর দিয়ে হেঁটে গেলে অনতিদূরে দেখতে পারেন লাভার্স পয়েন্ট (Lovers Point) এবং সানরাইজ পয়েন্ট (Sunrise Point)৷ এই স্থানে ভোরবেলা ও সন্ধ্যার দিকে পাখির দেখাও মিলতে পারে।

চটকপুর গ্রামে কিভাবে পৌঁছাবেন (how to reach Chatakpur Hills)

ভাবছেন তো কিভাবে যাবেন সুন্দর এই স্থানটিতে? দার্জিলিং (Darjeeling) থেকে ২৫ কিলোমিটার এবং সোনাদা (Sonada) থেকে ১০ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত হওয়ার কারণে এখানে পৌঁছাতে আপনার বিশেষ কোনো সমস্যা হবে না। দার্জিলিং পৌঁছানোর পর সেখান থেকে ঘুম ও সোনাদা হয়ে সড়কপথে আপনি পৌঁছাতে পারবেন এই জায়গায়৷ দার্জিলিং থেকে বড় গাড়ি ভাড়া করলে আপনার খরচ পড়তে পারে মাথাপিছু ১৫০০ টাকা৷ তবে শেয়ার গড়িতে করেও আর একটু কম খরচে পৌঁছে যেতে পারবেন চটকপুর গ্রামে।

Hills

চটকপুর গ্রামে থাকার জায়গা (places for staying)

এই গ্রামটিতে পৌঁছে থাকার জায়গা নিয়েও বিশেষ চিন্তা করতে হবে না আপনাকে। চটকপুর ইকো ভিলেজের (Chatakpur Hills Eco Village) মধ্যেই অনেকগুলি হোম স্টে পেয়ে যাবেন থাকার জন্য। এগুলির মধ্যে ধনমায়া নিবাস (Dhanmaya Nibas) হোম স্টে বেশ বিখ্যাত৷ অনলাইনেই বুক করা যায় এই হোম স্টে গুলি। আসার আগে অনলাইনে থাকার জায়গা বুক করে আসাই ভালো।